আযান-ইক্বামাতের বাক্যগুলি কিভাবে বলবেন?

0
80

আযান এবং ইক্বামাতের বাক্য গুলো আপনি কতবার করে বলবেন? হাদীসে রাসূলে এ ব্যাপারে বিভিন্ন বক্তব্য পাওয়া যায়। যেমন-

জোড়ায় জোড়ায় বলা বিষয় হাদীস সমূহ হচ্ছেঃ

ক. রাসূল সা. এর মুয়াজ্জিন হযরত আবু মাহযুরা রা. বলেছেনঃ علمني رسول الله (صـ) الإقامة سبع عشرة كلمة

“রাসূলুল্লাহ সা. আমাকে সতেরো বাক্যে ইক্বামাত শিক্ষা দিয়েছেন”।

-ইমাম তিরমিযি আবু মাহযুবা রা. থেকে মারফু হাদীস বর্ণনা করতঃ এই হাদীসকে সহীহ বলেছেন।

খ. রাসূল সা. এর অপর মুয়াজ্জিন হযরত সালমা ইবনুল আকওয়া রা. এর আমল ছিল ১৭ বাক্যে ইক্বামাত প্রদান। উবাঈদ রাহ. বলেন, রাসূল সা. এর মুয়াজ্জিন হযরত আবু মাহযুরা রা. বলেছেনঃ أن سلمة بن الأكوع كان يثني الإقامة. “সালামা ইবনুল আকওয়া রা. ইক্বামাতের বাক্যগুলো দুইবার করে বলতেন”।

গ. রাসূল সা. এর প্রথম  মুয়াজ্জিন হযরত বিলাল রা. এর আমল সম্পর্কে আসওয়াদ ইবনে ইয়াযীদ রাহ. বলেন- إن بلالا كان يثني الأذان ويثني الإقامة. “হযরত বিলাল রা. আযান ও ইক্বামাতের বাক্যগুলো দুইবার করে বলতেন”।

ঘ. হযরত বিলালকে দুইবার করে ইক্বামতের বাক্যগুলো বলার নির্দেশ দেয়া হয়েছে ইসলামের প্রাথমিক যুগে। কিন্তু এই নিয়ম মনসুখ হওয়ার পর তিনি জীবনের শেষ প্রান্তে ইক্বামাতের বাক্যগুলো ২বার করে বলতেন।

এক বাক্যে বলার জন্য যে হাদীস পাওয়া যায়, তাহলোঃ

ক. হযরত আনাস রা. বলেন-أمر بلال أن يشفع الأذان ويؤتر الإقامة “বিলাল রা. কে আযানের বাক্যগুলো দুইবার করে আর ইক্বামাতের বাক্যগুলো একবার করে বলার আদেশ দেয়া হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here