আবদ মানে গোলাম বা দাস। ইবাদত শব্দটির উৎপত্তি ঐ আবদ শব্দ থেকে। যার অর্থ গোলামী করা বা দাসত্ব করা। মানুষ সৃষ্টিগত ভাবে আল্লাহর গোলাম। আর গোলামী করার জন্যই মানুষকে সৃষ্টি করা হয়েছে। মনিবের সমীপে একান্ত অনুগত থাকা এবং তাঁর সাথে ঠিক ভৃত্যের ন্যায় আচরণ করার নাম ইবাদত বা গোলামী। কিন্তু মনিবের নিকট থেকে বেতন নিয়ে ঠিক চাকরের মতো কাজ না করার নাম নাফরমানী বা বিদ্রোহ।

ইবাদত বা গোলামী করার অর্থঃ

১. মনিবের দাসত্ব স্বীকার করাঃ মনিবকে রব বা মালিক বলে স্বীকার করা। তার সাথে কাউকে অংশীদার না করা।

২. মনিবের আনুগত্য করাঃ মালিকের নির্দেশ জানা এবং মানা। অন্যের নির্দেশ পালন না করা। গোলাম সব সময়ই গোলাম। তাই সকল কাজকে গোলামীর অধীনে নিয়ে আসা।

৩. মনিবের সম্মাণ ও সম্ভ্রম রক্ষাঃ মনিবের প্রতি সম্মাণ প্রদর্শণ ও আদব রক্ষা করা। আদব ও সম্মাণ প্রদর্শনের জন্য মনিবের দেয়া নিয়মে তা নির্দিষ্ট সময়ে উপস্থিত হয়ে প্রদর্শণ করা।

1 COMMENT

  1. […] উত্তরঃ আবদ মানে গোলাম বা দাস। ইবাদত শব্দটির উৎপত্তি ঐ আবদ শব্দ থেকে। যার অর্থ গোলামী করা বা দাসত্ব করা। বিস্তারিত… […]

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here